Donate
News

promoting science education || ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান বিষয়ের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে হবে

promoting science education || ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান বিষয়ের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে হবে

‘‘ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞান বিষয়ের প্রতি আগ্রহ বাড়াতে হবে, আর এজন্য আমাদের বিদ্যালয়গুলোকে ডিজিটালাইজড্স্ করতে হবে’’, মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়ন (পিএসই) প্রকল্পের লক্ষ্য উদ্দেশ্য এবং কার্যক্রম সম্পর্কে  কুষ্টিয়া সদরের ৩০ টি মাধ্যমিক  শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানের সম্যক ধারনা দেওয়ার লক্ষ্যে মতবিনিময় সভায় কুষ্টিয়া ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় এর ট্রেজারার জনাব . সেলিম তোহা উপরোক্ত মন্তব্য করেন। তিনি আরও বলেন, একজন ভালো শিক্ষক সেই যে তার শিক্ষার্থীদের ভালোবাসতে পারে, নিজের দায়িত্ব যথাযথ ভাবে পালন করে। তিনি আরো বলেন, বিজ্ঞান একটি সমুদ্র সেখান থেকে শিক্ষার্থীদের আনন্দ ঘন পরিবেশে যদি শিখানো যায় তাহলে আমি মনে করি আমাদের এই অঞ্চলে শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান শিক্ষায় আরো উৎসাহিত হবে।

fair ngo teacher's orientation on promoting science education

ফেয়ার এর উপদেষ্টা জনাব সাহাবুব আরীর সভাপত্ত্বিতে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন ফেয়ার এর প্রধান উপদেষ্টা জনাব নজরুল ইসলাম। তিনি বলেন, একজন শিক্ষার্থীর আর্থিক, মানসিক, সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক উন্নয়ন সাধন করতে পারলেই শিক্ষার্থীরা বিজ্ঞান বিষয়ে উৎসাহিত হবে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন লেখক গবেষক জনাব ডক্টর আমানুর আমান। তিনি বলেন, আমাদের এই অঞ্চলের বিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষাথীরা বিজ্ঞান বিষয়ে ভীতু, তাদেরকে এবং অভিভাবকদের সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে বিজ্ঞান  বিষয়ে উৎসাহিত করতে হবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব শাহাবুব আলী বলেন, আজকের শিশু আগামীর ভবিষৎ আমরা চাই আমাদের আগামী প্রজন্ম যেন বিজ্ঞান প্রযুক্তি মনষ্ক হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ফেয়ার এর পরিচালক জনাব দেওয়ান আখতারুজ্জামান।

fair ngo teacher's orientation on promoting science education

সভায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজ্ঞান শিক্ষার প্রসারে শিক্ষকদের পক্ষ থেকে মতামত পরামর্শ তুলে ধরেন, বারখাদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: আনছার আলী, আলহাজ আব্দুল গণি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: শরিফ উদ্দিন বিশ^াস, চাঁদ সুলতানা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিরা নাসরিন, কলকাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জেবউল নেছা, দি ওল্ড কুষ্টিয়া হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো: গোলাম আজম, লক্ষীপুর হাসান বাগ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: শামছুল আলম, সাহিত্যিক মীর মশারফ হোসেন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোয়ারা সুলতানা, দিনমণি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: সালাউদ্দিন খান, কবুরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: তারিক হোসেন, রঞ্জিতপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: নাসির উদ্দীন, ঝাউদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার বিশ^াস, জিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: আবু বকর সিদ্দিক, শহীদ হাসান ফয়েজ বালিকা বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক শিরিয়া খাতুন প্রমুখ।     

fair ngo teacher's orientation on promoting science education 02

উল্লেখ্য যে, জাতীয় পর্যায়ে যেখানে ১৯৮৮ সালে এস এস সি পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার ৪১.৩৫ % পরীক্ষার্থী  বিজ্ঞান বিভাগে ছিল, ২০১৮ এসে সেটা  হয় ৩১.০০ % কিন্তু দেখা যাচ্ছে ২০১৮ সালে যশোর শিক্ষা বোর্ডে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি পরীক্ষার্থী ২১.৯০ % এমনি পরিস্থিতিতে মাধ্যমিক পর্যায়ে বিজ্ঞানে ভীতি দূর করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ফেয়ার কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ৩০ টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বাস্তবায়ন করছে  মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়ন (পিএসই) প্রকল্প

সভায় প্রকল্পের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য কার্যক্রম তুলে ধরেন ফেয়ার এর প্রকল্প সমন্বয়কারী  মো: আব্দুল খালিদ, প্রকল্পের জরিপ তথ্য বিষয়ে বর্ণনা করেন প্রকল্প কর্মকর্তা মো: মনিরুজ্জামান, সার্বিক সহায়তা করেন ফেয়ার এর প্রকল্প সমন্বয়কারী কেএম হারিসুল আলিম, প্রকল্প কর্মকর্তা জাফরিন সুলতানা হিসাব কর্মকর্তা মো: বেলাল আহমেদ।

Tagged:

0 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.