ফেয়ার এর উদ্যোগে শিক্ষার্থীদের মাঝে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ

বিশ্ব আজ অদৃশ্য এক শক্তির সাথে যুদ্ধ করছে। ইতি মধ্যেয় অনেকে এই যুদ্ধে জয়ী হয়েছে অনেকে আবার পরাজিত হয়ে বিদায় নিয়েছে এই পৃথিবী থেকে কেউ কেউ এখনও লড়ে যাচ্ছে। হ্যা বলছি বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাস তথা কোভিড-১৯ এর কথা। পুরো বিশ্বকে আজ এই অদৃশ্য ভাইরাসটি থমকে দিয়েছে। তারই অংশ হিসেবে থমকে গেছে বিশ্ব তথা বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থা বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা কার্যক্রম।mask for student12

 

এমতাবস্থায় বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন(বিএফএফ) এর সহায়তায় ও ফেয়ার কর্তৃক বাস্তবায়নকৃত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়ন(পিএসই) প্রকল্পাধীন কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ক্লাবের কার্যক্রম সচল রাখতে এক বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে।

 

mask for student5আমরা জানি যে করোনা ভাইরাসের কোন ধরনের টিকা আবিষ্কার না হওয়ায় সচেতন হওয়া ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় হচ্ছে একমাত্র উপায়। সেই কারনে বিজ্ঞান শিক্ষার উন্নয়ন(পিএসই) প্রকল্পর কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ক্লাবে কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে পরিচালনার ও স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিএফএফ এর সহায়তায় ফেয়ার এর পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের মাঝে তিন লেয়ারের ৩৩০ টি সুতি মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ করা হয়। এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছেন ফেয়ার এর প্রকল্প সমন্বয়কারী কে.এম হারিসুল আলম এবং তাকে সার্বক্ষণিক সহযোগিতা করছেন ফেয়ার এর পিএসই প্রকল্প কর্মকতা জাফরিন সুলতানা।

mask for student 31

উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশন এর সহায়তায় ফেয়ার কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ৩০ টি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিজ্ঞান শিক্ষা প্রসারে কাজ করছে। কোভিড ১৯ এর কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অনলাইনে বিদ্যালয় ভিত্তিক বিজ্ঞান মেলাসহ অন্যান্য কর্মসূচি চলমান রাখা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.