Donate
News

নির্যাতনের শিকার ও বঞ্চিত প্রান্তিকনারীদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে পাটপণ্য তৈরি বিষয়ক প্রশিক্ষণ

নির্যাতনের শিকার ও বঞ্চিত প্রান্তিকনারীদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে পাটপণ্য তৈরি বিষয়ক প্রশিক্ষণ

সোনালী আঁশ পাট আমাদের নিজস্ব সম্পদ। গুণগত মানের দিক থেকে আমাদের পাটের শ্রেষ্টত্ব সারাবিশ্বে। একসময় পাটের চাহিদা ছিলো সারাবিশ্বে। এখন পাট দ্বারা তৈরি হচ্ছে নানাবিধ পণ্য।আর পাটপণ্য পরিবেশবান্ধব হওয়ার এর ব্যবহারও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাটেরপণ্যের ব্যবহার জনপ্রিয় করার লক্ষ্যে নানাবিধ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। এই বছর থেকে ৬ মার্চকে ‘‘জাতীয় পাটদিবস’’ ঘোষনা করাসহ বাধ্যতামূলকভাবে ১৭ টি কৃষিপণ্যে পাটের মোড়ক ব্যবহার নিশ্চিত করেছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় ফেয়ার এর উদ্যোগে নির্যাতনের শিকার ও বঞ্চিত প্রান্তিকনারীদের আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে পরিবেশ বান্ধব পাটপণ্য তৈরি বিষয়ক ৭ দিনের প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়। গতকাল ফেয়ার এর সাধারণ সদস্য ও দৈনিক কুষ্টিয়া ও দি কুষ্টিয়া টাইমস এর প্রকাশক ও সম্পাদক আমানুর আমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে এই প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল বায়েছ মিয়া। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন হাটশ হরিপুর ইউপি চেয়াম্যান সম্পা মাহমুদ।স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফেয়ার এর পরিচালক দেওয়ান আখতারুজ্জামান।এবং ঢাকা থেকে আগত প্রশিক্ষক ক্রাফ্টভিশন এর সত্বাধিকারি ইব্রাহিম খলিল। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহায়তায় এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে ফেয়ার। কুষ্টিয়ার প্রত্যন্ত গ্রাম হাটশ হরিপুরের ২০ জন নারী এই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করছে।

0 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.